তারিখ : ২৮ নভেম্বর ২০২০, শনিবার
[ ] [ ] পাঠক সংখ্যা : 1229363


                   ফটোগ্রাফারদের জন্য একটি উন্মক্ত সাইড

দিতি-সেলিম আশরাফের শয্যা পাশে তারকারা

প্রকাশকাল : ২৯/১/২০১৬ ৫:২৬:০০ প্রকাশক : মোঃ তাজমুল হক সম্পাদক ভালুকার কন্ঠ পাঠক সংখ্যা : 1264


No Image
Close
দিতি-সেলিম আশরাফের শয্যা পাশে তারকারা
টানা তিন মাস ক্যানসার চিকিৎসার পর ভারতের মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অব অর্থোপেডিকস অ্যান্ড ট্রমাটোলজি (এমআইওটি) হাসপাতাল থেকে গেল ৮ জানুয়ারি অসুস্থতা নিয়েই দেশে ফিরেন অভিনেত্রী দিতি। সরাসরি ভর্তি করানো হয় গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে।অন্যদিকে গেল প্রায় এক সপ্তাহ রাজধানীর একই হাসপাতালের নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন দেশের অন্যতম সুরকার সেলিম আশরাফ। তার স্ত্রী জনপ্রিয় কণ্ঠশিল্পী আলম আরা মিনু সারা দেশের শিল্পী সমাজের কাছে সহযোগিতা চেয়েছেন। বলেছেন, ‘প্লিজ তার (সেলিম আশরাফ) জন্য কিছু করুন।’

সেই সূত্রে অথবা নিজস্ব তাগিদে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সবার আগে সেলিম আশরাফ ও দিতির শয্যা পাশে হাজির হলেন দেশের শীর্ষ তারকা দম্পতি নায়ক আলমগীর ও কণ্ঠশিল্পী রুনা লায়লা। একই সন্ধ্যায় কাছাকাছি সময়ে দেখতে যান তিন প্রজন্মের তিনজন কণ্ঠ তারকা তপন চৌধুরী, সামিনা চৌধুরী ও দিনাত জাহান মুন্নি। আরও গেছেন সুরকার ফরিদ আহমেদ এবং অভিনেতা ওমর সানি।

সেলিম আশরাফের সহধর্মিনী আলম আরা মিনু বলেন, ‘তারা আমাদের কাছে এসেছেন। চিকিৎসার খবর নিয়েছেন। এরচেয়ে বড় প্রাপ্তি কী হতে পারে? সেলিম তাদেরকে দেখেছেন, টুকটাক কথাও বলেছেন। আমি বুঝতে পারি, এ মানুষগুলোকে দেখে তিনি অনেক খুশি হয়েছেন।’এদিকে সেলিম আশরাফকে দেখার পর একই হাসপাতালে থাকা অভিনেত্রী দিতিকেও তারা দেখতে গেছেন। সুরকার ফরিদ আহমেদ জানান, দিতি তখন ঘুমে থাকার কারণে কেউ তার সঙ্গে কথা বলতে পারেননি। এমনকি ছবিও তোলা হয়নি।

প্রসঙ্গত, ‘যে মাটির বুকে ঘুমিয়ে আছে লক্ষ মুক্তি সেনা’- দেশ ও মুক্তিযুদ্ধের এই বিখ্যাত গানসহ বেশকিছু শ্রোতাপ্রিয় গানের সুরকার সেলিম আশরাফ বর্তমানে আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। ২৩শে জানুয়ারি হৃদরোগে আক্রান্ত হলে তাকে বনশ্রীর ফরায়জী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তাকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছিল। একদিন পরেই তাকে স্থানান্তর করা হয় গুলশানের ইউনাইটেড হাসপাতালে। এখন সেখানেই তিনি নিবিড় পর্যবেক্ষণে রয়েছেন।

এদিকে অভিনেত্রী দিতির শারীরিক অবস্থা মোটেই ভালো নয়। টিউমার ও ক্যানসারের পর এখন তিনি পারকিনসন'স রোগে ভুগছেন। এ রোগটির অবস্থাও বেশ নাজুক পর্যায়ে আছে বলে জানিয়েছিলেন ভারতের চিকিৎসকরা। সেখানেই টানা তিন মাস চিকিৎসার পর দিতিকে দেশে ফিরিয়ে আনার সিদ্ধান্ত নেয় তার পরিবারের সদস্যরা। আরও জানা যায়, পারকিনসন’স রোগের দ্বিতীয় অবস্থায় আছেন এ চিত্রনায়িকা। যা থেকে পরিপূর্ণ সুস্থতা কখনওই সম্ভব নয়। অপরদিকে হাসপাতালটিতে তাদের খরচও বাড়ছছিল ক্রমশ। তাই দিতিকে দেশে আনা হলো।

মন্তব্য


সর্বশেষ সংবাদ

অনলাইন জরিপ

আপনি কি মনে করেন তত্ত্বাবধায়ক ছারা দেশে সর্বজন স্বীকৃত- গ্রহন যোগ্য নির্বাচন করা সম্ভব ?

ভোট দিয়েছেন ২৭ জন

পুরোনো ফলাফল দেখুন

বিজ্ঞাপন